র‌্যাব সদস্যদের দেখে ফেসবুক লাইভে ডাকাত বলে অপপ্রচার চালান পরীমনি

0
2037

ঢাকাই সিনেমার আলোচিত নায়িকা পরীমনির বাসায় অভিযান পরিচালনা করেছে র‌্যাব। বুধবার বিকালে রাজধানীর বনানীতে পরীমনির বাসায় অভিযানে যান র‌্যাব ও পুলিশ সদস্যরা।অভিযানে অংশ নেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতের একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটও।

র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে তাৎক্ষণিক নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে লাইভে আসেন পরীমনি। এ সময় র‌্যাবের পক্ষ থেকে পরীমনিকে তার বাসায় অভিযানের কথা জানানো হয়।কিন্তু তিনি লাইভে এসে মিথ্যা তথ্য ও অপপ্রচার চালানো শুরু করেন।

লাইভে পরী বলেন, আমি ঘুমাইতেছিলাম। বাসার নিচে মেইনগেটে সব ভাঙচুর করে তারা ওপরে চলে আসছে। এখন বাসার গেট ভাংচুরের চেষ্টা করছে। বারবার কলিং বেল বাজাচ্ছে। পুলিশসহ কেউ শুনছে না, আমি সবাইকে ফোন করলাম, কেউ আসছে না। মরে গেলে আসবেন ভাই?

-বিজ্ঞাপন-

তিনি বলেন, এরা যদি ডাকাত হয় কী করবেন? আমি এটার ভয় করছিলাম। আমি আজ লাইভ কাটব না। এখানে থানা থেকে আসতে কতক্ষণ লাগে? মানুষ কি মরে যাবে? তারা নাকি কেউ জানে না, কোন থানা থেকে আসছে, সিআইডি না র‌্যাব কেউ কিছু বলতে পারছে না।

পরীমনি আরও বলেন, আমি ডিবি অফিসে ফোন করলাম, হারুন ভাই বললেন, আমাদের এখান থেকে কেউ যায়নি। তোমার দরজা খোলার দরকার নেই। আমরা আসছি। আমি বুঝতেছি না আমি মরে গেলে আসবেন? আমি তো হার্ট আট্যাক করব। ব্রেনস্ট্রোক করে মরে যাব। এটা একদম টর্চার।

লাইভে থেকে আলোচিত এই চিত্রনায়িকা কারো একজনের সঙ্গে ফোনে কথা বলেন। তখন তাকে বলতে শোনা যায়, আমি মরে যাব। আর পৃথিবী দেখবে না! আমি লাইভ কাটব না। আমি দেখিয়ে মরব। আমার সঙ্গে কেউ কিছু করে পার পাবে না। আর মেরে ফেললে তো কোনো কিছু করার নেই।

র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বলেন, সুনির্দিষ্ট কিছু অভিযোগের ভিত্তিতে তার (পরীমনি) বাসায় অভিযান চালানো হচ্ছে, বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

মন্তব্যর উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন