শনিবার, আগস্ট ১৩, ২০২২

মালদ্বীপকে বধ করার মিশন আজ

সাফ অনূর্ধ্ব-২০ বাংলাদেশ ফুটবল দলের অধিনায়ক তানভীর হোসেন ঢাকা থেকে ভারতের যাওয়ার আগে বলেছিলেন তারা সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের প্রতিটি ম্যাচ আলাদা আলাদ করে দেখছেন। একটা একটা করে ম্যাচ এগিয়ে যেতে চান। ভারতের ওড়িশায় গিয়ে টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচ শ্রীলঙ্কাকে হারিয়েছে ১-০ গোলে দ্বিতীয় ম্যাচে সবচেয়ে বড় শক্তিশালী দল ভারতকে কুপোকাত করেছে ২-১ গোলে। দুই ম্যাচ বাংলার ফুটবলারদের পারফরম্যান্স নজর কাড়া। দুই ম্যাচে ৬ পয়েন্ট তুলে নিয়ে এখন শীর্ষে রয়েছে। ভারত নিচে পড়েছে। আজ সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় বাংলাদেশ-মালদ্বীপ ম্যাচ।

পর পর দুটি ম্যাচ জয়ের টনিকে বাংলার যুবারা এখন উজ্জীবিত। খেলোয়াড়রা বলছেন বুকটা বড় হয়ে গেছে। সাহস পাচ্ছি একটু বেশি। ভারত ছিল বাংলাদেশের সবচেয়ে কঠিনতম একটি প্রতিপক্ষ। সেই ভারত তাদের প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমে বাংলাদেশের ম্যাচ হেরেছে। তার পরও অংশগ্রহণকারী দলগুলোর মধ্যে ধারণা ফাইনালে খেলবে ভারত। এখনো তাদের তিন ম্যাচ বাকি রয়ে গেছে। প্রথম ম্যাচে রেজাল্ট খারাপ হতেই পারে। পরের তিন ম্যাচে ক্ষতি পুশিয়ে নিতে পারলে ফাইনালের টিকিট পাওয়া যাবে।  ভারতের অঙ্কের খাতাপত্রে উঁকি দেওয়ার সময় নেই বাংলাদেশের ফুটবলারদের। নিজেদের খাতা নিয়ে বসে হিসাব করছেন কী হলে কী হতে পারে। সেখানে কাটাকাটি অনেক করেছেন দলের হেড কোচ এবং বাফুফের টেকনিক্যাল ডাইরেক্টর অস্ট্রেলিয়ান পল থমাস স্মলি। বার বার বলছিলেন তার দলটা খুব ভালো ভাবে প্রস্ত্ততি নিতে পারেনি। প্রিমিয়ার লিগের ছয় জন, চ্যাম্পিয়নশিপ লিগের পাঁচ জন এবং বাফুফের এলিট একাডেমির ১২ ফুটবলার নিয়ে গড়া হয়েছে সাফ অনূর্ধ্ব—২০ ফুটবল দল।  ভারত থেকে অধিনায়ক তানভীর হোসেন বলেছেন, ‘আমাদের প্ল্যানই ছিল ম্যাচ বাই ম্যাচ এগিয়ে যাব। সেটাই হয়েছে। এখন আমাদের টার্গেট ফাইনালে যাওয়া। খুবই গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ আজ। জিততে পারলে আমরা কনফার্ম ফাইনালে যাব।’ মালদ্বীপকে হারাতে পারলে বাংলাদেশ সুবিধাজনক স্হানে থাকবে এবং অন্যান্য ম্যাচের হিসবাটা দেখতে হবে। কারণ ভুবনেশ্বরে কালিঙ্গা স্টেডিয়ামে সন্ধ্যায় বাংলাদেশ-মালদ্বীপ ম্যাচ শুরু হওয়ার আগে একই মাঠে বিকালে সাড়ে ৪টায় ভারত-শ্রীলঙ্কা ম্যাচ রয়েছে।  এই ম্যাচের রেজাল্ট কি হয় এবং ভারতের ম্যাচ রয়েছে নেপালের বিপক্ষে সেটিও গুরুত্ব বহন করছে। এখানে গোল ব্যবধানটা বড় কাজে আসবে। তাই আজকে শুধু মালদ্বীপকে হারালেই নয় সঙ্গে বাংলাদেশের টার্গেট থাকবে গোল ব্যবধানটা এগিয়ে রাখা। ভুবনেশ্বর থেকে দলের গোলকিপিং কোচ বিপ্লব জানিয়েছেন, ফাইনাল নিশ্চিত হতে তারা ৩১ জুলাই নেপাল-ভারত ম্যাচ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে চান।

আপনার জন্য নির্বাচিত খবর

মন্তব্যর উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

যুক্ত হউন

12,150অনুসারীলাইক
105অনুসারীঅনুসরন
0সাবস্ক্রাইব করেছেসাবস্ক্রাইব

সর্বশেষ খবর