বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ২, ২০২১

আদর্শ নারীর যে গুণাবলী থাকা দরকার!

একজন নারীর বৈশিষ্ট্য কেমন হবে। সংসার জীবনে স্বামী-সন্তানের জন্য তার কাজ গুলো যদি উত্তম হয় তবেই সে দুনিয়াতে স্বর্গীয় জীবন ভোগ করতে পারবে।

সমাজ পাবে আদর্শ প্রজন্ম আর আখেরাতের জীবনে থাকবে তার জন্য মুক্তি ও চিরকালীন সুখ -শান্তি।

১. পর্দাশীল ও লজ্জাশীল হওয়া।
আল্লাহ তায়ালা প্রত্যেক নারী -পুরুষের উপর পর্দা ফরজ করেছেন। তাই পর্দা পালন করা প্রত্যেক নারী -পুরুষ এর জন্য একান্ত আবশ্যক।

পর্দার মাধ্যমেই মানুষের মাঝে লজ্জা জন্মায়।পর্দা ও লজ্জাই একজন পর্দাশীল নারিকে যে কারো সাথে অবাধ মিলামিশা, চলাফেরা থেকে হেফাজত করে।

নবীজি বলেছেন, আল- হায়া শুবাতুম মিনাল ইমান অর্থাৎ লজ্জা হলো ঈমানের অঙ্গ।

২.সত্যবাদি হওয়া।
সত্যবাদিতা মানবজীবনের শ্রেষ্ঠ গুণের ১ টি গুণ। যার মাঝে যত বেশি সত্যবাদীতা রয়েছে তার মাঝে ততবেশি ঈমানদারিতা রয়েছে। নারী যদি সত্যবাদী হয় পরিবারের সবাই সত্য বলতে শিখে।

আর নবীজি বলেছেন, সত্য মানুষ কে নাজাত দেয়, মিথ্যা মানুষকে ধংস করে।

৩. ধৈর্যশীল হওয়া।
ধৈর্য উত্তম গুণ। পরিবারিক জীবনে ধৈর্যশীল নারীর বিকল্প নেই। আদর্শ পরিবার গঠনে ধৈর্যশীলতার বিকল্প নেই। আর এ ধৈর্যেশীলতা আল্লাহর একটি গুণ।

আল্লাহ তায়ালা তায়ালা বলেন।
ইন্নাল্লাহা মাআস সাবিরিন নিশ্চয় আল্লাহ ধৈর্যশীলদের সঙ্গে আছেন।

আপনার জন্য নির্বাচিত খবর

মন্তব্যর উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন

যুক্ত হউন

12,150অনুসারীলাইক
52অনুসারীঅনুসরন
0সাবস্ক্রাইব করেছেসাবস্ক্রাইব

সর্বশেষ খবর