ঢাকা ০২:০১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম:

উল্কা গেমসের কর ফাঁকি টাকা তুলতে পারবেন না কোনো পক্ষই

মনিটর এর দাম জানতে এখন-ই ক্লিক করুন

কর ফাঁকির অভিযোগে ‘উল্কা গেমস’ নামে একটি অনলাইন জুয়া কোম্পানির ৫৩ কোটি টাকার অ্যাকাউন্টের ওপর স্থিতাবস্থা জারি করেছেন হাইকোর্ট। এর ফলে ব্র্যাক ব্যাংকের গুলশান শাখায় থাকা ওই টাকা কেউ তুলতে পারবেন না।

ছুটির দিন বুধবার (১ মে) হাইকোর্টের বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদের একক (কোম্পানি) বেঞ্চ এই আদেশ দেন। একই সঙ্গে এ বিষয়ে পরবর্তী শুনানির জন্য রোববার (৫ মে) দিন ধার্য করেন আদালত।

 

জানা গেছে, এদিন শুনানি শেষে আদালত ব্র্যাক ব্যাংকের গুলশান ব্রাঞ্চে থাকা ওই ৫৩ কোটি টাকার অ্যাকাউন্টের ওপর ৫ মে পর্যন্ত স্থিতাবস্থা জারি করেন। ওই সময় পর্যন্ত জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) ও ‘উল্কা গেমস’ কোনো পক্ষই টাকা তুলতে পারবেন না।

সকালে সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে একটি অবকাশকালীন বিশেষ বেঞ্চ বসেছিল বলে জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেন সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্টার জেনারেল মো. গোলাম রব্বানী।

 

তিনি বলেন, শ্রমিক দিবসের সরকারি ছুটির মধ্যেও বিশেষ ব্যবস্থাপনায় একটি গুরুত্বপূর্ণ মামলার কার্যক্রম পরিচালনার জন্য হাইকোর্টের অবকাশকালীন একক বেঞ্চ বসেন।

এর আগে, মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় কর অঞ্চল-১৫ এর ডেপুটি কমিশনারের নেতৃত্বে একটি বিশেষ টিম ব্র্যাক ব্যাংকের ওই শাখায় অভিযান শুরু করে। তবে দিনভর নানান চেষ্টা করে কর ফাঁকির ওই ৫০ কোটি টাকা আদায় করতে পারেননি এনবিআর কর্মকর্তারা। রাত ১১টা ৫০ মিনিট পর্যন্ত ব্যাংকের ওই শাখায় এনবিআর কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এরপর তারা বেরিয়ে যান।

ব্যাংক কর্তৃপক্ষের এমন আচরণ শাস্তিযোগ্য অপরাধ বলে জানিয়েছেন এনবিআর কর্মকর্তারা। অন্যদিকে ব্র্যাক ব্যাংক জানিয়েছে, আদালতের আদেশ থাকায় টাকা দেওয়া যায়নি।

 

‘উল্কা গেমস’র বিরুদ্ধে কর ফাঁকির অভিযোগে দুই বছর আগে তদন্ত শুরু করে এনবিআরের গোয়েন্দা সংস্থা সিআইসি। টাকা নিয়ে কোম্পানিটি যাতে পালিয়ে যেতে না পারে সেজন্য উল্কা গেমসের ব্র্যাক ব্যাংকে থাকা ৫৩ কোটি টাকা ফ্রিজ করে। তদন্তে প্রায় ৫০ কোটি টাকা কর ফাঁকির প্রমাণ মেলে।

সকল প্রকার কম্পিউটার পূন্যের দাম জানতে এখন-ই ক্লিক করুন

মাইক্রোসফট ওয়ার্ডের একটি পৃষ্ঠা ‘ল্যান্ডস্কেপ’ করবেন যেভাবে

উল্কা গেমসের কর ফাঁকি টাকা তুলতে পারবেন না কোনো পক্ষই

আপডেট সময় : ০১:৫৩:০০ অপরাহ্ন, বুধবার, ১ মে ২০২৪

কর ফাঁকির অভিযোগে ‘উল্কা গেমস’ নামে একটি অনলাইন জুয়া কোম্পানির ৫৩ কোটি টাকার অ্যাকাউন্টের ওপর স্থিতাবস্থা জারি করেছেন হাইকোর্ট। এর ফলে ব্র্যাক ব্যাংকের গুলশান শাখায় থাকা ওই টাকা কেউ তুলতে পারবেন না।

ছুটির দিন বুধবার (১ মে) হাইকোর্টের বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদের একক (কোম্পানি) বেঞ্চ এই আদেশ দেন। একই সঙ্গে এ বিষয়ে পরবর্তী শুনানির জন্য রোববার (৫ মে) দিন ধার্য করেন আদালত।

 

জানা গেছে, এদিন শুনানি শেষে আদালত ব্র্যাক ব্যাংকের গুলশান ব্রাঞ্চে থাকা ওই ৫৩ কোটি টাকার অ্যাকাউন্টের ওপর ৫ মে পর্যন্ত স্থিতাবস্থা জারি করেন। ওই সময় পর্যন্ত জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) ও ‘উল্কা গেমস’ কোনো পক্ষই টাকা তুলতে পারবেন না।

সকালে সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে একটি অবকাশকালীন বিশেষ বেঞ্চ বসেছিল বলে জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেন সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্টার জেনারেল মো. গোলাম রব্বানী।

 

তিনি বলেন, শ্রমিক দিবসের সরকারি ছুটির মধ্যেও বিশেষ ব্যবস্থাপনায় একটি গুরুত্বপূর্ণ মামলার কার্যক্রম পরিচালনার জন্য হাইকোর্টের অবকাশকালীন একক বেঞ্চ বসেন।

এর আগে, মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় কর অঞ্চল-১৫ এর ডেপুটি কমিশনারের নেতৃত্বে একটি বিশেষ টিম ব্র্যাক ব্যাংকের ওই শাখায় অভিযান শুরু করে। তবে দিনভর নানান চেষ্টা করে কর ফাঁকির ওই ৫০ কোটি টাকা আদায় করতে পারেননি এনবিআর কর্মকর্তারা। রাত ১১টা ৫০ মিনিট পর্যন্ত ব্যাংকের ওই শাখায় এনবিআর কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এরপর তারা বেরিয়ে যান।

ব্যাংক কর্তৃপক্ষের এমন আচরণ শাস্তিযোগ্য অপরাধ বলে জানিয়েছেন এনবিআর কর্মকর্তারা। অন্যদিকে ব্র্যাক ব্যাংক জানিয়েছে, আদালতের আদেশ থাকায় টাকা দেওয়া যায়নি।

 

‘উল্কা গেমস’র বিরুদ্ধে কর ফাঁকির অভিযোগে দুই বছর আগে তদন্ত শুরু করে এনবিআরের গোয়েন্দা সংস্থা সিআইসি। টাকা নিয়ে কোম্পানিটি যাতে পালিয়ে যেতে না পারে সেজন্য উল্কা গেমসের ব্র্যাক ব্যাংকে থাকা ৫৩ কোটি টাকা ফ্রিজ করে। তদন্তে প্রায় ৫০ কোটি টাকা কর ফাঁকির প্রমাণ মেলে।