ঢাকা ০২:০২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম:

অস্থির মাংসের বাজার, দেশি মুরগির কেজি ৬৫০

সপ্তাহ ব্যবধানে দেশি মুরগির দাম বেড়েছে ৫০ টাকার বেশি।

মনিটর এর দাম জানতে এখন-ই ক্লিক করুন

অস্থির হয়ে উঠেছে মাংসের বাজার। রাজধানীর বাজারে আবারও বাড়ছে গরু, খাসি ও মুরগির দাম। প্রতিকেজি দেশি মুরগির দাম ছাড়িয়েছে ৬৫০ টাকা। সংশ্লিষ্টদের দাবি, সরবরাহ ঘাটতির কারণেই বাড়ছে মাংসের দাম।

শুক্রবার (২৯ মার্চ) কেরানীগঞ্জের জিনজিরা, আগানগর ও রাজধানীর কারওয়ানবাজারসহ বেশ কয়েকটি বাজার ঘুরে এ চিত্র দেখা যায়।

নিত্যপণ্যের বাজারে অস্থিরতা যেন থামছেই না। সবজি ছাড়া ঊর্ধ্বমুখী প্রায় সব পণ্যের দাম। এর প্রভাবে বাজারে বাড়ছে মাংসের দামও। সপ্তাহ ব্যবধানে শুধু দেশি মুরগির দাম বেড়েছে ৫০ টাকার ওপরে। আর ব্রয়লার ও সোনালি মুরগির দাম বেড়েছে ১০ থেকে ৩০ টাকা পর্যন্ত।

বাজারে প্রতিকেজি ব্রয়লার মুরগি ২০০-২২০ টাকা, সোনালি মুরগি ৩২০-৩৫০ টাকা, দেশি মুরগি ৬০০-৬৫০ টাকা, সাদা লেয়ার ২৬০ টাকা ও লাল লেয়ার বিক্রি হচ্ছে ৩২০-৩৩০ টাকায়। আর জাতভেদে প্রতি পিস হাঁস বিক্রি হচ্ছে ৫৫০-৭০০ টাকায়।

প্রতিকেজি গরুর মাংস বিক্রি হচ্ছে ৭৫০-৮০০ টাকায়।

বিক্রেতারা জানান, বাজারে মুরগির সরবরাহ অনেক কমে গেছে। এতে বাড়ছে দাম। কেরানীগঞ্জের আগানগর বাজারের মুরগি বিক্রেতা রিপন বলেন, পাইকারি পর্যায়ে বেড়েছে মুরগির দাম। তা ছাড়া সরবরাহও কম। যার প্রভাব পড়ছে খুচরা বাজারেও।

রাজধানীর কারওয়ানবাজারের স্বদেশ মুরগির আড়তের বিক্রেতা জানান,

তবে ক্রেতাদের দাবি, সিন্ডিকেট করে বাড়ানো হচ্ছে মুরগির দাম। আর বাজারে কোনো দেশি মুরগি নেই। সংকর জাতের বিভিন্ন মুরগিকে দেশি মুরগি বলে বিক্রি করছেন ব্যবসায়ীরা।

প্রান্তিক খামারিদের সংগঠন বাংলাদেশ পোলট্রি অ্যাসোসিয়েশনের (বিপিএ) সভাপতি সুমন হাওলাদার বলেন,

সকল প্রকার কম্পিউটার পূন্যের দাম জানতে এখন-ই ক্লিক করুন

মাইক্রোসফট ওয়ার্ডের একটি পৃষ্ঠা ‘ল্যান্ডস্কেপ’ করবেন যেভাবে

অস্থির মাংসের বাজার, দেশি মুরগির কেজি ৬৫০

আপডেট সময় : ০৩:৫৭:০৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ মার্চ ২০২৪

অস্থির হয়ে উঠেছে মাংসের বাজার। রাজধানীর বাজারে আবারও বাড়ছে গরু, খাসি ও মুরগির দাম। প্রতিকেজি দেশি মুরগির দাম ছাড়িয়েছে ৬৫০ টাকা। সংশ্লিষ্টদের দাবি, সরবরাহ ঘাটতির কারণেই বাড়ছে মাংসের দাম।

শুক্রবার (২৯ মার্চ) কেরানীগঞ্জের জিনজিরা, আগানগর ও রাজধানীর কারওয়ানবাজারসহ বেশ কয়েকটি বাজার ঘুরে এ চিত্র দেখা যায়।

নিত্যপণ্যের বাজারে অস্থিরতা যেন থামছেই না। সবজি ছাড়া ঊর্ধ্বমুখী প্রায় সব পণ্যের দাম। এর প্রভাবে বাজারে বাড়ছে মাংসের দামও। সপ্তাহ ব্যবধানে শুধু দেশি মুরগির দাম বেড়েছে ৫০ টাকার ওপরে। আর ব্রয়লার ও সোনালি মুরগির দাম বেড়েছে ১০ থেকে ৩০ টাকা পর্যন্ত।

বাজারে প্রতিকেজি ব্রয়লার মুরগি ২০০-২২০ টাকা, সোনালি মুরগি ৩২০-৩৫০ টাকা, দেশি মুরগি ৬০০-৬৫০ টাকা, সাদা লেয়ার ২৬০ টাকা ও লাল লেয়ার বিক্রি হচ্ছে ৩২০-৩৩০ টাকায়। আর জাতভেদে প্রতি পিস হাঁস বিক্রি হচ্ছে ৫৫০-৭০০ টাকায়।

প্রতিকেজি গরুর মাংস বিক্রি হচ্ছে ৭৫০-৮০০ টাকায়।

বিক্রেতারা জানান, বাজারে মুরগির সরবরাহ অনেক কমে গেছে। এতে বাড়ছে দাম। কেরানীগঞ্জের আগানগর বাজারের মুরগি বিক্রেতা রিপন বলেন, পাইকারি পর্যায়ে বেড়েছে মুরগির দাম। তা ছাড়া সরবরাহও কম। যার প্রভাব পড়ছে খুচরা বাজারেও।

রাজধানীর কারওয়ানবাজারের স্বদেশ মুরগির আড়তের বিক্রেতা জানান,

তবে ক্রেতাদের দাবি, সিন্ডিকেট করে বাড়ানো হচ্ছে মুরগির দাম। আর বাজারে কোনো দেশি মুরগি নেই। সংকর জাতের বিভিন্ন মুরগিকে দেশি মুরগি বলে বিক্রি করছেন ব্যবসায়ীরা।

প্রান্তিক খামারিদের সংগঠন বাংলাদেশ পোলট্রি অ্যাসোসিয়েশনের (বিপিএ) সভাপতি সুমন হাওলাদার বলেন,