ঢাকা ১১:১১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কমলাপুর থেকে নির্বিঘ্নে ছাড়ছে ট্রেন, নেই ভোগান্তির অভিযোগ

অগ্রিম টিকিটে ঈদযাত্রার দ্বিতীয় দিন আজ। সকাল থেকে বিলম্ব ছাড়াই চলছে ট্রেন। ঈদের ছুটি এখনো শুরু না হওয়ায় কমলাপুর স্টেশনে বাড়েনি যাত্রীর চাপ। গত ২৫ মার্চ যেসব যাত্রী অগ্রিম টিকিট পেয়েছেন, কেবল তারাই আজ কমলাপুর থেকে যাচ্ছেন দেশের বিভিন্ন স্থানে।

বৃহস্পতিবার (৪ এপ্রিল) সরেজমিনে কমলাপুর রেলস্টেশনে ঘুরে দেখা গেছে, শিডিউল অনুযায়ী চলাচল করছে ট্রেন। ট্রেনের জন্য প্ল্যাটফর্মে অবস্থান করছেন যাত্রীরা। স্টেশনের গেট দিয়ে টিকিট চেক করেই ঢোকানো হচ্ছে যাত্রীদের। টিকিট ছাড়া অতিরিক্ত কোনো যাত্রী প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না স্টেশনে। তবে সরকারি ও বেসরকারি ছুটি শুরু না হওয়ায় এখনো যাত্রীর চাপ বাড়েনি।

কমলাপুর স্টেশনের বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মকর্তা শাহ আলম কিরণ জাগো নিউজকে বলেন, সকাল থেকে ১২টি আন্তঃনগর ট্রেন ছেড়ে গেছে। ৭ তারিখ থেকে উপচেপড়া ভিড় শুরু হবে। এখন নির্ধারিত মানুষই যাচ্ছেন। ২৫ শতাংশ স্টান্ডিং টিকিটও বিক্রি হচ্ছে।

তিনি বলেন, এখনো আগের ৪২ জোড়া আন্তঃনগর ট্রেনই ছেড়ে যাচ্ছে। যাত্রীর চাপ সামলাতে আমাদের ক্যান্টনমেন্ট স্টেশন থেকে স্পেশাল দুটি ট্রেন ছেড়ে যাবে। আগামী ৭ তারিখ থেকে বিশেষ ৮ ট্রেন চলাচল করবে।

যাত্রীরাও বলছেন, কোনো প্রকার হয়রানি ছাড়াই যাতায়াত করতে পারছেন যাত্রীরা।

কমলাপুর থেকে নির্বিঘ্নে ছাড়ছে ট্রেন, নেই ভোগান্তির অভিযোগ

আপডেট সময় : ১২:২৯:৩৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ এপ্রিল ২০২৪

অগ্রিম টিকিটে ঈদযাত্রার দ্বিতীয় দিন আজ। সকাল থেকে বিলম্ব ছাড়াই চলছে ট্রেন। ঈদের ছুটি এখনো শুরু না হওয়ায় কমলাপুর স্টেশনে বাড়েনি যাত্রীর চাপ। গত ২৫ মার্চ যেসব যাত্রী অগ্রিম টিকিট পেয়েছেন, কেবল তারাই আজ কমলাপুর থেকে যাচ্ছেন দেশের বিভিন্ন স্থানে।

বৃহস্পতিবার (৪ এপ্রিল) সরেজমিনে কমলাপুর রেলস্টেশনে ঘুরে দেখা গেছে, শিডিউল অনুযায়ী চলাচল করছে ট্রেন। ট্রেনের জন্য প্ল্যাটফর্মে অবস্থান করছেন যাত্রীরা। স্টেশনের গেট দিয়ে টিকিট চেক করেই ঢোকানো হচ্ছে যাত্রীদের। টিকিট ছাড়া অতিরিক্ত কোনো যাত্রী প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না স্টেশনে। তবে সরকারি ও বেসরকারি ছুটি শুরু না হওয়ায় এখনো যাত্রীর চাপ বাড়েনি।

কমলাপুর স্টেশনের বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মকর্তা শাহ আলম কিরণ জাগো নিউজকে বলেন, সকাল থেকে ১২টি আন্তঃনগর ট্রেন ছেড়ে গেছে। ৭ তারিখ থেকে উপচেপড়া ভিড় শুরু হবে। এখন নির্ধারিত মানুষই যাচ্ছেন। ২৫ শতাংশ স্টান্ডিং টিকিটও বিক্রি হচ্ছে।

তিনি বলেন, এখনো আগের ৪২ জোড়া আন্তঃনগর ট্রেনই ছেড়ে যাচ্ছে। যাত্রীর চাপ সামলাতে আমাদের ক্যান্টনমেন্ট স্টেশন থেকে স্পেশাল দুটি ট্রেন ছেড়ে যাবে। আগামী ৭ তারিখ থেকে বিশেষ ৮ ট্রেন চলাচল করবে।

যাত্রীরাও বলছেন, কোনো প্রকার হয়রানি ছাড়াই যাতায়াত করতে পারছেন যাত্রীরা।