ঢাকা ১১:২১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চার্জার লাইটের ভেতরে ৫ কোটি টাকার সোনা, ২ বিদেশি গ্রেপ্তার

মনিটর এর দাম জানতে এখন-ই ক্লিক করুন

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পাঁচ কোটি টাকার ৪৬ সোনার বারসহ বিদেশি দুই যাত্রীকে গ্রেপ্তার করেছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর।

দুবাই থেকে আসা ফ্লাই দুবাই এয়ায়লাইন্সের বিদেশি দুই যাত্রীর কাছে থাকা ৩টি চার্জার লাইটের ব্যাটারির ভেতর থেকে ৫ কেজি ৩৩৬ গ্রাম ওজনের সোনার বারগুলো জব্দ করে শুল্ক গোয়েন্দার একটি টিম।

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) সকালে ওই অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক সাবরিনা আমিন।

শুল্ক গোয়েন্দা জানায়, হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দুবাই থেকে ঢাকায় আসা ফ্লাই দুবাই এয়ায়লাইন্সের ১৪এ এবং ১৩এফ সিটের যাত্রী লু জংলিং ও চেন জিংকে তল্লাশি করে তাদের কাঁধব্যাগে তিনটি চার্জার লাইট জব্দ করা হয়। জব্দ করা চার্জার লাইট গ্রিন চ্যানেলের ইনভেন্ট্রি টেবিলে বিভিন্ন সংস্থার উপস্থিতিতে খোলা হয়। পরে  চার্জার লাইটের ভেতরে থাকা ব্যাটারির মধ্য থেকে ৪৬ পিস সোনার বার উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার করা সোনার মোট ওজন ৫ কেজি ৩৩৬ গ্রাম। বাজার মূল্য ৫ কোটি ১ লাখ ৫৮ হাজার টাকা। কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত টিমের তৎপরতায় ও তল্লাশির কারণে এই স্বর্ণ চোরাচালানটি রোধ করা সম্ভব হয়েছে। সোনারবারগুলো কাস্টম হাউস, ঢাকার মূল্যবান শুল্ক গুদামে জমা দেওয়া ও বিমানবন্দর থানায় যাত্রীদের হস্তান্তর করে ফৌজদারি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সকল প্রকার কম্পিউটার পূন্যের দাম জানতে এখন-ই ক্লিক করুন

চার্জার লাইটের ভেতরে ৫ কোটি টাকার সোনা, ২ বিদেশি গ্রেপ্তার

আপডেট সময় : ০৩:১৬:২২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পাঁচ কোটি টাকার ৪৬ সোনার বারসহ বিদেশি দুই যাত্রীকে গ্রেপ্তার করেছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর।

দুবাই থেকে আসা ফ্লাই দুবাই এয়ায়লাইন্সের বিদেশি দুই যাত্রীর কাছে থাকা ৩টি চার্জার লাইটের ব্যাটারির ভেতর থেকে ৫ কেজি ৩৩৬ গ্রাম ওজনের সোনার বারগুলো জব্দ করে শুল্ক গোয়েন্দার একটি টিম।

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) সকালে ওই অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক সাবরিনা আমিন।

শুল্ক গোয়েন্দা জানায়, হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দুবাই থেকে ঢাকায় আসা ফ্লাই দুবাই এয়ায়লাইন্সের ১৪এ এবং ১৩এফ সিটের যাত্রী লু জংলিং ও চেন জিংকে তল্লাশি করে তাদের কাঁধব্যাগে তিনটি চার্জার লাইট জব্দ করা হয়। জব্দ করা চার্জার লাইট গ্রিন চ্যানেলের ইনভেন্ট্রি টেবিলে বিভিন্ন সংস্থার উপস্থিতিতে খোলা হয়। পরে  চার্জার লাইটের ভেতরে থাকা ব্যাটারির মধ্য থেকে ৪৬ পিস সোনার বার উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার করা সোনার মোট ওজন ৫ কেজি ৩৩৬ গ্রাম। বাজার মূল্য ৫ কোটি ১ লাখ ৫৮ হাজার টাকা। কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত টিমের তৎপরতায় ও তল্লাশির কারণে এই স্বর্ণ চোরাচালানটি রোধ করা সম্ভব হয়েছে। সোনারবারগুলো কাস্টম হাউস, ঢাকার মূল্যবান শুল্ক গুদামে জমা দেওয়া ও বিমানবন্দর থানায় যাত্রীদের হস্তান্তর করে ফৌজদারি মামলা দায়ের করা হয়েছে।