ঢাকা ০১:৩৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম:

ভালো জীবনসঙ্গীর মধ্যে কী কী গুণাবলি থাকে?

মনিটর এর দাম জানতে এখন-ই ক্লিক করুন

প্রত্যেক মানুষই একজন আদর্শ সঙ্গীর স্বপ্ন দেখেন। যিনি তার সঙ্গীকে অনেক ভালোবাসবেন। যে কোনো প্রতিকূল পরিস্থিতিতে সমর্থন করবেন।

একজন ভালো জীবনসঙ্গী হতে গেলে বেশ কয়েকটি গুণাবলি থাকা জরুরি। যা অনেকের মধ্যেই বিরাজ করে না। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক একজন ভালো জীবনসঙ্গীর কয়েকটি বৈশিষ্ট্য-

 

১. একজন ভালো জীবনসঙ্গী তার সঙ্গী ও পরিবারের প্রতি যত্নশীল ও সহানুভূতিশীল হন। এমন ব্যক্তিরা প্রতিকূল পরিবেশে সঙ্গীর সঙ্গ ছাড়েন না।

২. একজন ভালো জীবনসঙ্গী অন্যান্য দায়িত্বের পাশাপাশি সঙ্গীর ভালোমন্দের দিকেও সমান দায়িত্ব পালন করেন। সঙ্গীকে সময় দেন তারা।

 

৩. সঙ্গীর সব কাজে উৎসাহ ও সম্মান প্রদর্শন করেন এমন ব্যক্তিরা। তারা সঙ্গীকে উৎসাহ ও অনুপ্রেরণা দেন সব সময়। সঙ্গীর সিদ্ধান্তকেও সম্মান করেন। কখনো নিজের মতামত বা সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দেন না।

 

৪. যে কোনো সমস্যা সমাধান করে ঠান্ডা মাথায় একজন ভালো জীবনসঙ্গী। তারা এমন সমাধান বের করেন যা পরিবার ও সংসার তথা সবার জন্যই ভালো হবে।

৫. সঙ্গীর সঙ্গে যে কোনো বিষয়ে আলাপচারিতার মাধ্যমে একসঙ্গে মিলে কাজ করতে পছন্দ করেন তারা। টিমওয়ার্ক প্রতিটি বিবাহের একটি গুরুত্বপূর্ণ দিক। এই গুণ কখনো উপেক্ষা করা উচিত নয়।

৬. প্রিয় মানুষটির খারাপ দিকগুলো কখনো তুলে ধরেন না একজন ভালো জীবনসঙ্গী। বরং ভালো দিকগুলো মানুষের কাছে প্রকাশ করেন, যাতে সঙ্গীর সম্মানহানি না ঘটে।

এ ধরনের মানুষেরা দয়ালু, করুণাময়, শ্রদ্ধাশীল, সুখী ও যত্নশীল হন। এমন জীবনসঙ্গী পেলে সংসারও হয় সুখের!

সকল প্রকার কম্পিউটার পূন্যের দাম জানতে এখন-ই ক্লিক করুন

মাইক্রোসফট ওয়ার্ডের একটি পৃষ্ঠা ‘ল্যান্ডস্কেপ’ করবেন যেভাবে

ভালো জীবনসঙ্গীর মধ্যে কী কী গুণাবলি থাকে?

আপডেট সময় : ১২:৪৪:৪২ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ এপ্রিল ২০২৪

প্রত্যেক মানুষই একজন আদর্শ সঙ্গীর স্বপ্ন দেখেন। যিনি তার সঙ্গীকে অনেক ভালোবাসবেন। যে কোনো প্রতিকূল পরিস্থিতিতে সমর্থন করবেন।

একজন ভালো জীবনসঙ্গী হতে গেলে বেশ কয়েকটি গুণাবলি থাকা জরুরি। যা অনেকের মধ্যেই বিরাজ করে না। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক একজন ভালো জীবনসঙ্গীর কয়েকটি বৈশিষ্ট্য-

 

১. একজন ভালো জীবনসঙ্গী তার সঙ্গী ও পরিবারের প্রতি যত্নশীল ও সহানুভূতিশীল হন। এমন ব্যক্তিরা প্রতিকূল পরিবেশে সঙ্গীর সঙ্গ ছাড়েন না।

২. একজন ভালো জীবনসঙ্গী অন্যান্য দায়িত্বের পাশাপাশি সঙ্গীর ভালোমন্দের দিকেও সমান দায়িত্ব পালন করেন। সঙ্গীকে সময় দেন তারা।

 

৩. সঙ্গীর সব কাজে উৎসাহ ও সম্মান প্রদর্শন করেন এমন ব্যক্তিরা। তারা সঙ্গীকে উৎসাহ ও অনুপ্রেরণা দেন সব সময়। সঙ্গীর সিদ্ধান্তকেও সম্মান করেন। কখনো নিজের মতামত বা সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দেন না।

 

৪. যে কোনো সমস্যা সমাধান করে ঠান্ডা মাথায় একজন ভালো জীবনসঙ্গী। তারা এমন সমাধান বের করেন যা পরিবার ও সংসার তথা সবার জন্যই ভালো হবে।

৫. সঙ্গীর সঙ্গে যে কোনো বিষয়ে আলাপচারিতার মাধ্যমে একসঙ্গে মিলে কাজ করতে পছন্দ করেন তারা। টিমওয়ার্ক প্রতিটি বিবাহের একটি গুরুত্বপূর্ণ দিক। এই গুণ কখনো উপেক্ষা করা উচিত নয়।

৬. প্রিয় মানুষটির খারাপ দিকগুলো কখনো তুলে ধরেন না একজন ভালো জীবনসঙ্গী। বরং ভালো দিকগুলো মানুষের কাছে প্রকাশ করেন, যাতে সঙ্গীর সম্মানহানি না ঘটে।

এ ধরনের মানুষেরা দয়ালু, করুণাময়, শ্রদ্ধাশীল, সুখী ও যত্নশীল হন। এমন জীবনসঙ্গী পেলে সংসারও হয় সুখের!