ঢাকা ১০:০৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আইফোনে পাসওয়ার্ড রিসেটের মেসেজ আসলে সাবধান হোন

সাইবার অপরাধীরা নানান রকম ফন্দি আটতে থাকে প্রতারণার। সম্প্রতি নতুন উপায়ে প্রতারণার ফাঁদ পেতেছে প্রতারকরা। অ্যাপল গ্রাহকরা একটি নতুন ধরনের অনলাইন সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন, যেখানে স্ক্যামাররা তাদের ব্যক্তিগত তথ্য চুরি করার চেষ্টা করছে।

এই স্ক্যামাররা নতুন কৌশল ব্যবহার করে ব্যবহারকারীদের তাদের অ্যাপলের অ্যাকাউন্ট অ্যাক্সেস করার জন্য প্রতারণা করছে, যা তাদের ডিভাইস এবং ডেটার নিয়ন্ত্রণ হারানোর মতো গুরুতর সমস্যার কারণ হতে পারে।

বিজ্ঞাপন

এক্ষেত্রে স্ক্যামাররা ব্যবহারকারীদের ফিশিং লিঙ্ক পাঠাচ্ছে। তারা এমন ই-মেইল বা মেসেজ পাঠায় যা দেখে মনে হয় হবে সেগুলো হুবহু অ্যাপলের থেকে এসেছে। ব্যবহারকারীদের কাছে দাবি করা হয় যে প্রাপকের অ্যাকাউন্ট বিপদে রয়েছে এবং অবিলম্বে মনোযোগ দেওয়া প্রয়োজন। এরা ব্যবহারকারীদের আতঙ্কিত করে এবং দ্রুত কাজ করার জন্য ভীতিকর ভাষা ব্যবহার করে।

এমনকি ভুক্তভোগীদের আস্থা অর্জনের জন্য, স্ক্যামাররা পিপলডাটাল্যাবসের মতো উৎস থেকে প্রাপ্ত ব্যক্তিগত তথ্য ব্যবহার করে। এই তথ্য ব্যবহার করা হলে ব্যবহারকারীরা তা বৈধ বলে মনে করেন। আর এ কারণেই ব্যবহারকারীরা তাদের বিশ্বাস করে আরও বেশি ভুল করছেন।

সূত্র: ইন্ডিয়া টুডে

আইফোনে পাসওয়ার্ড রিসেটের মেসেজ আসলে সাবধান হোন

আপডেট সময় : ০৭:৪৭:৩১ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩০ মার্চ ২০২৪

সাইবার অপরাধীরা নানান রকম ফন্দি আটতে থাকে প্রতারণার। সম্প্রতি নতুন উপায়ে প্রতারণার ফাঁদ পেতেছে প্রতারকরা। অ্যাপল গ্রাহকরা একটি নতুন ধরনের অনলাইন সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন, যেখানে স্ক্যামাররা তাদের ব্যক্তিগত তথ্য চুরি করার চেষ্টা করছে।

এই স্ক্যামাররা নতুন কৌশল ব্যবহার করে ব্যবহারকারীদের তাদের অ্যাপলের অ্যাকাউন্ট অ্যাক্সেস করার জন্য প্রতারণা করছে, যা তাদের ডিভাইস এবং ডেটার নিয়ন্ত্রণ হারানোর মতো গুরুতর সমস্যার কারণ হতে পারে।

বিজ্ঞাপন

এক্ষেত্রে স্ক্যামাররা ব্যবহারকারীদের ফিশিং লিঙ্ক পাঠাচ্ছে। তারা এমন ই-মেইল বা মেসেজ পাঠায় যা দেখে মনে হয় হবে সেগুলো হুবহু অ্যাপলের থেকে এসেছে। ব্যবহারকারীদের কাছে দাবি করা হয় যে প্রাপকের অ্যাকাউন্ট বিপদে রয়েছে এবং অবিলম্বে মনোযোগ দেওয়া প্রয়োজন। এরা ব্যবহারকারীদের আতঙ্কিত করে এবং দ্রুত কাজ করার জন্য ভীতিকর ভাষা ব্যবহার করে।

এমনকি ভুক্তভোগীদের আস্থা অর্জনের জন্য, স্ক্যামাররা পিপলডাটাল্যাবসের মতো উৎস থেকে প্রাপ্ত ব্যক্তিগত তথ্য ব্যবহার করে। এই তথ্য ব্যবহার করা হলে ব্যবহারকারীরা তা বৈধ বলে মনে করেন। আর এ কারণেই ব্যবহারকারীরা তাদের বিশ্বাস করে আরও বেশি ভুল করছেন।

সূত্র: ইন্ডিয়া টুডে