ঢাকা ১০:৩১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সিদ্ধিরগঞ্জে হেলে পড়েছে ৬ তলা ভবন

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে ‘বিশ্বাস মঞ্জিল’ নামের ছয়তলা একটি ভবন হেলে পড়েছে। ঝুঁকিপূর্ণ এ ভবনটি থেকে কিছুসংখ্যক ভাড়াটিয়া অন্য স্থানে স্থানান্তর হলেও দুর্ঘটনার আশঙ্কা নিয়ে অনেকে এখনো সেখানেই থাকছেন। তারাও শিগগির ভবন ছেড়ে দেবেন বলে জানিয়েছেন ভবনটির দায়িত্বপ্রাপ্ত ম্যানেজার লিটন মিয়া। এ ঘটনায় এলাকাবাসীর মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

সোমবার (৬ মে) বিকেলে হীরাঝিল আবাসিক এলাকার ৭ নম্বর রোডে গিয়ে এমন চিত্র দেখা যায়।

সরেজমিনে দেখা যায়, ভবনটি হেলে পড়ে চৌধুরী ভিলা নামের আরেকটি ভবনের সঙ্গে আটকে আছে। এতে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা করা হচ্ছে। ভবনটি হেলে পড়ার খবর শুনে অনেকে দেখতে আসছেন।

স্থানীয়রা বলছেন, ভবনটি নির্মাণের সময় পাইলিং করা হয়নি। এ কারণে একদিকে হেলে পড়েছে। একই ভবনের মালিক পাশাপাশি আরেকটি ভবন নির্মাণ করেছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, অবসরপ্রাপ্ত সাবেক সরকারি কর্মকর্তা মোহাম্মদ মহিউদ্দিন বিশ্বাসের ভবন এটি। তিনি বর্তমানে পরিবারসহ যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করছেন। তার অবর্তমানে ভবনটির দেখাশোনা করেন লিটন মিয়া নামের এক ব্যক্তি।

লিটন মিয়া জানান, গত পাঁচ বছর ধরে তিনি ভবনটির দায়িত্বে রয়েছেন। হেলে পড়ার বিষয়টি মালিককে জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে হীরাঝিল আবাসিক এলাকা সমাজ কল্যাণ সমিতির সভাপতি মো. হাবিবুল্লাহ বলেন, ভবনটি ঝুকিপূর্ণ হওয়ায় ভাড়াটিয়াদের উদ্দেশ্য ৫ মে আমরা একটি নোটিশ পাঠয়েছি। তাদের অন্যত্র চলে যেতে বলা হয়েছে।

আদমজী ফায়ার স্টেশন অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মিরন মিয়া বলেন, বিষয়টি আমাদের জানা নেই। তবে আমাদের টিম পাঠিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আবু বকর সিদ্দিকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

সিদ্ধিরগঞ্জে হেলে পড়েছে ৬ তলা ভবন

আপডেট সময় : ০৮:৫৭:১৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ৮ মে ২০২৪

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে ‘বিশ্বাস মঞ্জিল’ নামের ছয়তলা একটি ভবন হেলে পড়েছে। ঝুঁকিপূর্ণ এ ভবনটি থেকে কিছুসংখ্যক ভাড়াটিয়া অন্য স্থানে স্থানান্তর হলেও দুর্ঘটনার আশঙ্কা নিয়ে অনেকে এখনো সেখানেই থাকছেন। তারাও শিগগির ভবন ছেড়ে দেবেন বলে জানিয়েছেন ভবনটির দায়িত্বপ্রাপ্ত ম্যানেজার লিটন মিয়া। এ ঘটনায় এলাকাবাসীর মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

সোমবার (৬ মে) বিকেলে হীরাঝিল আবাসিক এলাকার ৭ নম্বর রোডে গিয়ে এমন চিত্র দেখা যায়।

সরেজমিনে দেখা যায়, ভবনটি হেলে পড়ে চৌধুরী ভিলা নামের আরেকটি ভবনের সঙ্গে আটকে আছে। এতে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা করা হচ্ছে। ভবনটি হেলে পড়ার খবর শুনে অনেকে দেখতে আসছেন।

স্থানীয়রা বলছেন, ভবনটি নির্মাণের সময় পাইলিং করা হয়নি। এ কারণে একদিকে হেলে পড়েছে। একই ভবনের মালিক পাশাপাশি আরেকটি ভবন নির্মাণ করেছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, অবসরপ্রাপ্ত সাবেক সরকারি কর্মকর্তা মোহাম্মদ মহিউদ্দিন বিশ্বাসের ভবন এটি। তিনি বর্তমানে পরিবারসহ যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করছেন। তার অবর্তমানে ভবনটির দেখাশোনা করেন লিটন মিয়া নামের এক ব্যক্তি।

লিটন মিয়া জানান, গত পাঁচ বছর ধরে তিনি ভবনটির দায়িত্বে রয়েছেন। হেলে পড়ার বিষয়টি মালিককে জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে হীরাঝিল আবাসিক এলাকা সমাজ কল্যাণ সমিতির সভাপতি মো. হাবিবুল্লাহ বলেন, ভবনটি ঝুকিপূর্ণ হওয়ায় ভাড়াটিয়াদের উদ্দেশ্য ৫ মে আমরা একটি নোটিশ পাঠয়েছি। তাদের অন্যত্র চলে যেতে বলা হয়েছে।

আদমজী ফায়ার স্টেশন অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মিরন মিয়া বলেন, বিষয়টি আমাদের জানা নেই। তবে আমাদের টিম পাঠিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আবু বকর সিদ্দিকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।