ঢাকা ০১:৪৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফুটবল নিয়ে বিরোধে যুবককে ছুরিকাঘাতে খুন

যশোরে ফুটবল খেলা নিয়ে বিরোধের জেরে এক যুবককে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষ। শনিবার (১১ মে) রাত ১০টার পর শংকরপুর আকবরের মোড় বারেক সড়কে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত নুর হোসেন ওই এলাকার নজরুল মোল্লার ছেলে ও আব্দুর রাজ্জাক মিউনিসিপ্যাল কলেজের ছাত্র।

নিহতের স্বজনরা জানান, শুক্রবার শংকরপুরে ফুটবল টুর্নামেন্টকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে গোলোযোগ বাধে। যা স্থানীয়রা মীমাংসার চেষ্টা করেন। কিন্তু রেশ থেকে যায়। শনিবার রাতে শংকরপুর চোপদারপাড়া এলাকার পচা, কানা রনি, রিয়াদ, মনিরসহ আরও কয়েকজন যুবক এসে নুরুকে ছুরিকাঘাত করে একটি ঘরের মধ্যে আটকে রাখে। এ সময় আশপাশের লোকজন এসে নুরুকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসাপাতালে ভর্তি করে। পরবর্তীতে ডাক্তার উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে খুলনায় রেফার করেন। খুলনায় নিয়ে যাওয়ার পথে রাত ১২টার দিকে তার মৃত্যু হয়।
এ বিষয়ে কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ফুটবল টুর্নামেন্টকে কেন্দ্র করে বিরোধের জের ধরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। জড়িতদের ধরতে পুলিশ অভিযান শুরু করেছে।

ফুটবল নিয়ে বিরোধে যুবককে ছুরিকাঘাতে খুন

আপডেট সময় : ১২:০৯:৪০ অপরাহ্ন, রবিবার, ১২ মে ২০২৪

যশোরে ফুটবল খেলা নিয়ে বিরোধের জেরে এক যুবককে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষ। শনিবার (১১ মে) রাত ১০টার পর শংকরপুর আকবরের মোড় বারেক সড়কে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত নুর হোসেন ওই এলাকার নজরুল মোল্লার ছেলে ও আব্দুর রাজ্জাক মিউনিসিপ্যাল কলেজের ছাত্র।

নিহতের স্বজনরা জানান, শুক্রবার শংকরপুরে ফুটবল টুর্নামেন্টকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে গোলোযোগ বাধে। যা স্থানীয়রা মীমাংসার চেষ্টা করেন। কিন্তু রেশ থেকে যায়। শনিবার রাতে শংকরপুর চোপদারপাড়া এলাকার পচা, কানা রনি, রিয়াদ, মনিরসহ আরও কয়েকজন যুবক এসে নুরুকে ছুরিকাঘাত করে একটি ঘরের মধ্যে আটকে রাখে। এ সময় আশপাশের লোকজন এসে নুরুকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসাপাতালে ভর্তি করে। পরবর্তীতে ডাক্তার উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে খুলনায় রেফার করেন। খুলনায় নিয়ে যাওয়ার পথে রাত ১২টার দিকে তার মৃত্যু হয়।
এ বিষয়ে কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ফুটবল টুর্নামেন্টকে কেন্দ্র করে বিরোধের জের ধরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। জড়িতদের ধরতে পুলিশ অভিযান শুরু করেছে।