ঢাকা ০২:২৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সব ভিসায় ওমরাহ পালনের সুযোগ

সৌদি আরবে এখন থেকে যেকোনো ভিসায় ওমরাহের সুযোগ দিচ্ছে দেশটির সরকার। এখন থেকে যেকোনো ভিসা নিয়ে সৌদিতে এলেই ওমরাহ করা যাবে। খবর গালফ নিউজের।

এ ব্যাপারে সৌদির হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয় এক্সে এক পোস্টে বলেছে, যেকোনো ভিসা নিয়ে যেকোনো দেশ থেকে আসা ব্যক্তি সুন্দর ও আরামদায়কভাবে ওমরাহ পালন করতে পারবেন।

মন্ত্রণালয় বলেছে, ফ্যামিলি, ট্রানজিট, লেবার এবং ই-ভিসাধারী সবাই কোনো বাধা ছাড়াই ওমরাহ পালন করতে পারবেন। হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয় এ ব্যাপারে বলেছে, ‘আপনার ভিসা যাই হোক, আপনি ওমরাহ করতে পারবেন।’

সৌদিতে আসার পর দেশটির সরকারি ‘নুসুক’ অ্যাপের মাধ্যমে ওমরাহর অনুমতি নেওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে।

এ ছাড়া নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই ওমরাহ করার অনুরোধ জানিয়েছে হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয়।

নুসুক অ্যাপের মাধ্যমে বিভিন্ন সেবা নিশ্চিত করা হয়। যার মধ্যে রয়েছে বাসস্থানের ব্যবস্থা করা, ওমরাহর পরিকল্পনা সাজানো এবং মদিনায় ভ্রমণ করা।

সৌদির বাইরের মুসল্লিরা যেন নির্বিঘ্নে এবং সুন্দরভাবে ওমরাহ করতে পারেন সেজন্য সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়েছে সৌদি আরব সরকার।

বিশেষ করে যারা আর্থিক, শারীরিক কারণে হজ করতে পারেন না; তারা যেন ওমরাহ করতে পবিত্র মক্কা ও মদিনায় উপস্থিত হতে পারেন, সেজন্য এ ক্ষেত্রে বিশেষ নজর দিয়েছে সৌদি আরব। এজন্য ওমরাহ পালনের ব্যবস্থা খুবই সহজ করে দেওয়া হয়েছে।

যারমধ্যে অন্যতম হলো ওমরাহ ভিসার মেয়াদ ৩০ দিন থেকে বাড়িয়ে ৯০ দিন করা, স্থল-জল ও আকাশপথে সৌদিতে প্রবেশের সুযোগ দেওয়া। এ ছাড়া নারীদের সঙ্গে পুরুষ সঙ্গী থাকার বাধ্যবাধকতাও তুলে দেওয়া হয়েছে।

সব ভিসায় ওমরাহ পালনের সুযোগ

আপডেট সময় : ১২:৫৯:৩৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৭ এপ্রিল ২০২৪

সৌদি আরবে এখন থেকে যেকোনো ভিসায় ওমরাহের সুযোগ দিচ্ছে দেশটির সরকার। এখন থেকে যেকোনো ভিসা নিয়ে সৌদিতে এলেই ওমরাহ করা যাবে। খবর গালফ নিউজের।

এ ব্যাপারে সৌদির হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয় এক্সে এক পোস্টে বলেছে, যেকোনো ভিসা নিয়ে যেকোনো দেশ থেকে আসা ব্যক্তি সুন্দর ও আরামদায়কভাবে ওমরাহ পালন করতে পারবেন।

মন্ত্রণালয় বলেছে, ফ্যামিলি, ট্রানজিট, লেবার এবং ই-ভিসাধারী সবাই কোনো বাধা ছাড়াই ওমরাহ পালন করতে পারবেন। হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয় এ ব্যাপারে বলেছে, ‘আপনার ভিসা যাই হোক, আপনি ওমরাহ করতে পারবেন।’

সৌদিতে আসার পর দেশটির সরকারি ‘নুসুক’ অ্যাপের মাধ্যমে ওমরাহর অনুমতি নেওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে।

এ ছাড়া নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই ওমরাহ করার অনুরোধ জানিয়েছে হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয়।

নুসুক অ্যাপের মাধ্যমে বিভিন্ন সেবা নিশ্চিত করা হয়। যার মধ্যে রয়েছে বাসস্থানের ব্যবস্থা করা, ওমরাহর পরিকল্পনা সাজানো এবং মদিনায় ভ্রমণ করা।

সৌদির বাইরের মুসল্লিরা যেন নির্বিঘ্নে এবং সুন্দরভাবে ওমরাহ করতে পারেন সেজন্য সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়েছে সৌদি আরব সরকার।

বিশেষ করে যারা আর্থিক, শারীরিক কারণে হজ করতে পারেন না; তারা যেন ওমরাহ করতে পবিত্র মক্কা ও মদিনায় উপস্থিত হতে পারেন, সেজন্য এ ক্ষেত্রে বিশেষ নজর দিয়েছে সৌদি আরব। এজন্য ওমরাহ পালনের ব্যবস্থা খুবই সহজ করে দেওয়া হয়েছে।

যারমধ্যে অন্যতম হলো ওমরাহ ভিসার মেয়াদ ৩০ দিন থেকে বাড়িয়ে ৯০ দিন করা, স্থল-জল ও আকাশপথে সৌদিতে প্রবেশের সুযোগ দেওয়া। এ ছাড়া নারীদের সঙ্গে পুরুষ সঙ্গী থাকার বাধ্যবাধকতাও তুলে দেওয়া হয়েছে।