ঢাকা ০১:৪৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

লড়াই ছাড়া ভিন্ন পথ নেই : নোমান

পাকিস্তান শাসনামলেও অনেক বাধা এসেছে উল্লেখ করে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান বলেছেন, তখনো গণতন্ত্রকামী মানুষের ওপর অত্যাচার হয়েছিল। তারপরও আমরা লড়াই করেছি এবং জয়ী হয়েছি। আগামীতেও আমাদের গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে লড়াই করতে হবে। লড়াই ছাড়া ভিন্ন পথ নেই। লড়াই করেই বাঁচতে হবে। অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে হবে।

শুক্রবার (২৯ মার্চ) সন্ধ্যায় গোপীবাগ সাদেক হোসেন খোকা কমিউনিটি সেন্টারে এক দোয়া ও ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

অবিভক্ত ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র প্রয়াত সাদেক হোসেন খোকার বাবা মরহুম এমএ করিমের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে এ দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

নোমান বলেন, সাদেক হোসেন খোকা গেরিলা যোদ্ধা ছিলেন, ভয় তাকে পিছু হটাতে পারেনি। আমাকেও মুক্তিযুদ্ধের সময় সাত বছর কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছিল, ভয় পাইনি। সাহস করে সামনের দিকে এগিয়েছি। গণতন্ত্রকামী জনতাকে ভয়কে পরাজিত করে সাহসকে জয় করতে হবে।

দোয়া মাহফিলে বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক কমিটির সদস্য ইশরাক হোসেন বলেন, বাংলাদেশ আজ সংকটময় সময় অতিক্রম করছে। চলছে দেশবিরোধী আগ্রাসন। এ আগ্রাসনের বিরুদ্ধে আমাদের রুখে দাঁড়াতে হবে। বাইরের কোনো হুকুমে এ দেশ চলবে না।

তিনি বলেন, অনেক জেল-জুলুম হয়েছে, আরও হবে। সবকিছু মোকাবিলা করেই দেশকে সত্যিকারভাবে স্বাধীন করতে হবে, উদ্ধার করতে হবে ছিনতাই হওয়া গণতন্ত্র।

এতে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনু, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য শামসুজ্জামান সুরুজ, দক্ষিণ বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুস সাত্তার, মনির চেয়ারম্যান, মহানগর নেতা সাইদুর রহমান মিন্টু প্রমুখ।

লড়াই ছাড়া ভিন্ন পথ নেই : নোমান

আপডেট সময় : ০৮:৫৮:১২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ মার্চ ২০২৪

পাকিস্তান শাসনামলেও অনেক বাধা এসেছে উল্লেখ করে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান বলেছেন, তখনো গণতন্ত্রকামী মানুষের ওপর অত্যাচার হয়েছিল। তারপরও আমরা লড়াই করেছি এবং জয়ী হয়েছি। আগামীতেও আমাদের গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে লড়াই করতে হবে। লড়াই ছাড়া ভিন্ন পথ নেই। লড়াই করেই বাঁচতে হবে। অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে হবে।

শুক্রবার (২৯ মার্চ) সন্ধ্যায় গোপীবাগ সাদেক হোসেন খোকা কমিউনিটি সেন্টারে এক দোয়া ও ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

অবিভক্ত ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র প্রয়াত সাদেক হোসেন খোকার বাবা মরহুম এমএ করিমের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে এ দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

নোমান বলেন, সাদেক হোসেন খোকা গেরিলা যোদ্ধা ছিলেন, ভয় তাকে পিছু হটাতে পারেনি। আমাকেও মুক্তিযুদ্ধের সময় সাত বছর কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছিল, ভয় পাইনি। সাহস করে সামনের দিকে এগিয়েছি। গণতন্ত্রকামী জনতাকে ভয়কে পরাজিত করে সাহসকে জয় করতে হবে।

দোয়া মাহফিলে বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক কমিটির সদস্য ইশরাক হোসেন বলেন, বাংলাদেশ আজ সংকটময় সময় অতিক্রম করছে। চলছে দেশবিরোধী আগ্রাসন। এ আগ্রাসনের বিরুদ্ধে আমাদের রুখে দাঁড়াতে হবে। বাইরের কোনো হুকুমে এ দেশ চলবে না।

তিনি বলেন, অনেক জেল-জুলুম হয়েছে, আরও হবে। সবকিছু মোকাবিলা করেই দেশকে সত্যিকারভাবে স্বাধীন করতে হবে, উদ্ধার করতে হবে ছিনতাই হওয়া গণতন্ত্র।

এতে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনু, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য শামসুজ্জামান সুরুজ, দক্ষিণ বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুস সাত্তার, মনির চেয়ারম্যান, মহানগর নেতা সাইদুর রহমান মিন্টু প্রমুখ।