ঢাকা ০১:৩৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম:

নারী পুরুষের চুলের যত্নে লেবু

মনিটর এর দাম জানতে এখন-ই ক্লিক করুন

লেবু চুলের যত্নে যুগ যুগ ধরে ব্যবহার হয়ে আসছে। লেবু বিভিন্নভাবে চুলের ও মাথার ত্বক রক্ষা করে। মাথার ত্বকে ধুলো, ময়লা আটকে থাকে, তখন লেবুর পানি মাথার ত্বকে ব্যবহার করলে তা পরিস্কার হয়ে যায়। চুলের ফলিকলগুলো আনলক করতে সাহায্য করে লেবু।

লেবুতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি থাকে, যা কোলাজেন উত্‍পাদনে সাহায্য করে ও চুলের বৃদ্ধি করে। এছাড়া লেবুতে প্রাকৃতিক ছত্রাক বিরোধী বৈশিষ্ট্য রয়েছে, যা খুশকিকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারে। লেবুর রসের সঙ্গে কয়েকটি উপাদান মিশ্রিত করে ব্যবহার করলে ভালো ফল পাওয়া যায়।

চলুন জেনে নিই চুলের যত্নে লেবুর ব্যবহার-

অ্যালোভেরার সঙ্গে লেবুর রস

একটি পাত্রের মধ্যে এক টেবিল চামচ তাজা লেবুর রস চেপে নিন। তাতে ২ টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল যোগ করুন। এবার একটি পেস্ট তৈরি করে মাথার ত্বকে লাগান। সুন্দরভাবে সবদিকে লাগিয়ে ২০-৩০ মিনিটের মতো রেখে দিন। শুকিয়ে গেলে হালকা শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

নারকেল পানি ও লেুবর রস

একটি পাত্রের মধ্যে এক টেবিল চামচ নারকেল পানির সঙ্গে এক টেবিল চামচ লেবুর রস মিশিয়ে একটি প্যাক তৈরি করুন। মাথার ত্বকে ব্যবহার করে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। সালফেট-মুক্ত শ্যাম্পু দিয়ে চুল ভালো করে পরিস্কার করে নিন। নারকেল পানিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্য, যা চুলের যে কোনো অক্সিডেটিভ ক্ষতি রোধ করে। কাঙ্ক্ষিত ফলাফলের জন্য সপ্তাহে একবার এই পদ্ধতিটে অনুসরণ করতে পারেন।

লেবুর রস ও জলপাই তেল

লেবুর রস এবং জলপাই তেল একসঙ্গে মিশিয়ে চুলের আগায় লাগান। ২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। ৩ সপ্তাহে একবার করে করলে আগা ফাটবে না।

লেবুর রস ও মধু

একটি লেবুর রসের সঙ্গে দুই চা চামচ মধু মিশিয়ে চুলে লাগান। এই মিশ্রণ মাথার তালুতে লাগানোর প্রয়োজন নেই। আধা ঘণ্টা পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে চুলের রুক্ষতা দূর হয়ে ঝলমলে হবে।

সকল প্রকার কম্পিউটার পূন্যের দাম জানতে এখন-ই ক্লিক করুন

মাইক্রোসফট ওয়ার্ডের একটি পৃষ্ঠা ‘ল্যান্ডস্কেপ’ করবেন যেভাবে

নারী পুরুষের চুলের যত্নে লেবু

আপডেট সময় : ০৩:১০:৩১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১ মে ২০২৪

লেবু চুলের যত্নে যুগ যুগ ধরে ব্যবহার হয়ে আসছে। লেবু বিভিন্নভাবে চুলের ও মাথার ত্বক রক্ষা করে। মাথার ত্বকে ধুলো, ময়লা আটকে থাকে, তখন লেবুর পানি মাথার ত্বকে ব্যবহার করলে তা পরিস্কার হয়ে যায়। চুলের ফলিকলগুলো আনলক করতে সাহায্য করে লেবু।

লেবুতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি থাকে, যা কোলাজেন উত্‍পাদনে সাহায্য করে ও চুলের বৃদ্ধি করে। এছাড়া লেবুতে প্রাকৃতিক ছত্রাক বিরোধী বৈশিষ্ট্য রয়েছে, যা খুশকিকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারে। লেবুর রসের সঙ্গে কয়েকটি উপাদান মিশ্রিত করে ব্যবহার করলে ভালো ফল পাওয়া যায়।

চলুন জেনে নিই চুলের যত্নে লেবুর ব্যবহার-

অ্যালোভেরার সঙ্গে লেবুর রস

একটি পাত্রের মধ্যে এক টেবিল চামচ তাজা লেবুর রস চেপে নিন। তাতে ২ টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল যোগ করুন। এবার একটি পেস্ট তৈরি করে মাথার ত্বকে লাগান। সুন্দরভাবে সবদিকে লাগিয়ে ২০-৩০ মিনিটের মতো রেখে দিন। শুকিয়ে গেলে হালকা শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

নারকেল পানি ও লেুবর রস

একটি পাত্রের মধ্যে এক টেবিল চামচ নারকেল পানির সঙ্গে এক টেবিল চামচ লেবুর রস মিশিয়ে একটি প্যাক তৈরি করুন। মাথার ত্বকে ব্যবহার করে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। সালফেট-মুক্ত শ্যাম্পু দিয়ে চুল ভালো করে পরিস্কার করে নিন। নারকেল পানিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্য, যা চুলের যে কোনো অক্সিডেটিভ ক্ষতি রোধ করে। কাঙ্ক্ষিত ফলাফলের জন্য সপ্তাহে একবার এই পদ্ধতিটে অনুসরণ করতে পারেন।

লেবুর রস ও জলপাই তেল

লেবুর রস এবং জলপাই তেল একসঙ্গে মিশিয়ে চুলের আগায় লাগান। ২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। ৩ সপ্তাহে একবার করে করলে আগা ফাটবে না।

লেবুর রস ও মধু

একটি লেবুর রসের সঙ্গে দুই চা চামচ মধু মিশিয়ে চুলে লাগান। এই মিশ্রণ মাথার তালুতে লাগানোর প্রয়োজন নেই। আধা ঘণ্টা পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে চুলের রুক্ষতা দূর হয়ে ঝলমলে হবে।