ঢাকা ০১:৫০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম:

জমজমাট ঈদ বাজার, বিক্রি বেড়েছে টুপি-আতর-জায়নামাজের

মনিটর এর দাম জানতে এখন-ই ক্লিক করুন

আসন্ন ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে জমে উঠেছে রাজধানীর ঈদ বাজার। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত ছোট-বড় মার্কেট, বিপণিবিতান এবং ফুটপাতে ভিড় করছেন মানুষজন। পরিবার-পরিজন, প্রিয়জন এবং নিজের জন্য পোশাক কিনতে আসা

ক্রেতাদের ভিড়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন দোকানি ও ব্যবসায়ীরাও। এর মধ্যে ঈদের ছুটিতে এখনই যারা গ্রামের বাড়িতে চলে যাচ্ছেন তারা ভিড় করছেন টুপি, আতর, সুরমা ও জায়নামাজের দোকানে। নিজের ও পরিবারের সদস্যদের জন্য

টুপি-আতর, বয়স্কদের জন্য সুরমা এবং জায়নামাজ কিনে নিচ্ছেন তারা।

শুক্রবার (২৯ মার্চ) রাজধানীর বায়তুল মোকাররম, ইয়ামেনি মার্কেট এবং নিউমার্কেট ঘুরে এমন দৃশ্য দেখা যায়। সেখানে আগত ক্রেতারা বলছেন, রমজান অর্ধেক পেরিয়েছে। এখন থেকেই ঈদের আমেজ শুরু হয়ে গেছে। স্কুল-কলেজ ছুটি

হওয়ার কারণে অনেকেই গ্রামের বাড়িতে চলে যাচ্ছেন। প্রতিবছর ঈদুল ফিতর বা রোজার ঈদেই নতুন পোশাক কেনার রেওয়াজ চালু রয়েছে। এরমধ্যে পায়জামা এবং পাঞ্জাবি ছাড়াও পুরুষদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি অনুষঙ্গ হচ্ছে টুপি ও

আতর। তাই দেশীয় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের তৈরি কিংবা বিদেশি ব্র্যান্ডের টুপি ও আতর কিনে নিয়ে যাচ্ছেন। আবার গ্রামের বাড়ির বয়স্ক এবং মুরুব্বিদের জন্যও সুরমা ও জায়নামাজও কিনে নিচ্ছেন অনেকে।

রুবেল হোসেন নামের এক ক্রেতা বলেন, শুক্রবার বায়তুল মোকাররমে নামাজ পড়তে এসেছি। বাইরে অনেক টুপির দোকান রয়েছে। অনেক ডিজাইনের টুপি পাওয়া যাচ্ছে। তাছাড়া গ্রামে টুপির দামও বেশি। সেজন্য ঢাকা থেকেই আমার ও ছেলের জন্য দুটি টুপি কিনেছি। অন্য জায়গার তুলনায় এখানে দাম স্বাভাবিকই মনে হচ্ছে। তবে আতরের দামটা অনেক বেশি।

এনামুল হাসান নামের আরেক ক্রেতা বলেন, রোজার ঈদেই তো বেশি কেনাকাটা করা হয়। নিজের ও পরিবারের জন্য পাঞ্জাবি-পায়জামা কিনেছি। এখন আতর এবং টুপি নিলাম। দাদীর জন্য একটি জায়নামাজ নিয়েছি। মার্কেটের বাইরে দাম কম। কিন্তু মার্কেটের ভেতরে যেটাই ধরেন অনেক দাম চাইবে।

সকল প্রকার কম্পিউটার পূন্যের দাম জানতে এখন-ই ক্লিক করুন

মাইক্রোসফট ওয়ার্ডের একটি পৃষ্ঠা ‘ল্যান্ডস্কেপ’ করবেন যেভাবে

জমজমাট ঈদ বাজার, বিক্রি বেড়েছে টুপি-আতর-জায়নামাজের

আপডেট সময় : ০৯:০১:৫০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ মার্চ ২০২৪

আসন্ন ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে জমে উঠেছে রাজধানীর ঈদ বাজার। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত ছোট-বড় মার্কেট, বিপণিবিতান এবং ফুটপাতে ভিড় করছেন মানুষজন। পরিবার-পরিজন, প্রিয়জন এবং নিজের জন্য পোশাক কিনতে আসা

ক্রেতাদের ভিড়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন দোকানি ও ব্যবসায়ীরাও। এর মধ্যে ঈদের ছুটিতে এখনই যারা গ্রামের বাড়িতে চলে যাচ্ছেন তারা ভিড় করছেন টুপি, আতর, সুরমা ও জায়নামাজের দোকানে। নিজের ও পরিবারের সদস্যদের জন্য

টুপি-আতর, বয়স্কদের জন্য সুরমা এবং জায়নামাজ কিনে নিচ্ছেন তারা।

শুক্রবার (২৯ মার্চ) রাজধানীর বায়তুল মোকাররম, ইয়ামেনি মার্কেট এবং নিউমার্কেট ঘুরে এমন দৃশ্য দেখা যায়। সেখানে আগত ক্রেতারা বলছেন, রমজান অর্ধেক পেরিয়েছে। এখন থেকেই ঈদের আমেজ শুরু হয়ে গেছে। স্কুল-কলেজ ছুটি

হওয়ার কারণে অনেকেই গ্রামের বাড়িতে চলে যাচ্ছেন। প্রতিবছর ঈদুল ফিতর বা রোজার ঈদেই নতুন পোশাক কেনার রেওয়াজ চালু রয়েছে। এরমধ্যে পায়জামা এবং পাঞ্জাবি ছাড়াও পুরুষদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি অনুষঙ্গ হচ্ছে টুপি ও

আতর। তাই দেশীয় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের তৈরি কিংবা বিদেশি ব্র্যান্ডের টুপি ও আতর কিনে নিয়ে যাচ্ছেন। আবার গ্রামের বাড়ির বয়স্ক এবং মুরুব্বিদের জন্যও সুরমা ও জায়নামাজও কিনে নিচ্ছেন অনেকে।

রুবেল হোসেন নামের এক ক্রেতা বলেন, শুক্রবার বায়তুল মোকাররমে নামাজ পড়তে এসেছি। বাইরে অনেক টুপির দোকান রয়েছে। অনেক ডিজাইনের টুপি পাওয়া যাচ্ছে। তাছাড়া গ্রামে টুপির দামও বেশি। সেজন্য ঢাকা থেকেই আমার ও ছেলের জন্য দুটি টুপি কিনেছি। অন্য জায়গার তুলনায় এখানে দাম স্বাভাবিকই মনে হচ্ছে। তবে আতরের দামটা অনেক বেশি।

এনামুল হাসান নামের আরেক ক্রেতা বলেন, রোজার ঈদেই তো বেশি কেনাকাটা করা হয়। নিজের ও পরিবারের জন্য পাঞ্জাবি-পায়জামা কিনেছি। এখন আতর এবং টুপি নিলাম। দাদীর জন্য একটি জায়নামাজ নিয়েছি। মার্কেটের বাইরে দাম কম। কিন্তু মার্কেটের ভেতরে যেটাই ধরেন অনেক দাম চাইবে।